1. [email protected] : Abdul Ahad Masuk : Abdul Ahad Masuk
  2. [email protected] : ABU NASER : ABU NASER
  3. [email protected] : Hafijur Rahman Suyeb : Hafijur Rahman Suyeb
  4. [email protected] : Lily Sultana : Lily Sultana
  5. [email protected] : MahfuzurRahman :
  6. [email protected] : MUHIN SHIPON : MUHIN SHIPON
  7. [email protected] : Sinbad :
  8. [email protected] : SIFUL ISLAM : SIFUL ISLAM
  9. [email protected] : Muhammad Yousuf : Muhammad Yousuf

শায়েস্তাগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে ১ মেয়রসহ ২ জনের মনোনয়ন বাতিল

  • Update Time : Friday, December 4, 2020

মুহিন শিপনঃ আসন্ন শায়েস্তাগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে ১ মেয়র প্রার্থী এবং ১ কাউন্সিলর প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র বাতিল করেছেন জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তা মোহাম্মদ সাদেকুল ইসলাম।
বৃহস্পতিবার দুপুরে শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয়ে মনোনয়ন পত্র যাচাই-বাছাই করে স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী আতাউর রহমান মাসুক ও ৪ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী মোঃ মুখলিছুর রহমানের মনোনয়ন পত্র বাতিল বলে ঘোষণা দেন।
জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তা মোহাম্মদ সাদেকুল ইসলাম জানান, স্বতন্ত্র প্রার্থীদের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য ১০০ জন সমর্থনকারী ভোটারের তালিকায় মিনা নামের একমহিলা সংশ্লিষ্ট এলাকার ভোটার না হওয়ায় ১জন মেয়র প্রার্থী এবং ঋণ খেলাপী থাকার কারনে ১জন কাউন্সিলর প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছে।
গত ১ ডিসেম্বর মেয়র পদে ৮ জনসহ মোট ৫৮ প্রার্থী মনোনয়ন পত্র জমা দেন। ২ জন বাতিল হওয়ায় এখন মোট বৈধ প্রার্থী ৫৬ জন।
মনোনয়ন বৈধ হওয়া মেয়র প্রার্থীরা হলেন আওয়ামীলীগ মনোনিত প্রার্থী মাসুদউজ্জামান মাসুক,বিএনপি মনোনিত প্রার্থী ফরিদ আহমেদ অলি, স্বতন্ত্র প্রার্থী বর্তমান মেয়র মোঃ ছালেক মিয়া,উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক ফজল উদ্দিন তালুকদার, শায়েস্তাগঞ্জ ব্যাকস এর সভাপতি আবুল কাশেম শিবলু, ছাত্রলীগ নেতা ইমদাদুল ইসলাম শীতল এবং সারোয়ার আলম শাকিল।
এছাড়াও সাধারণ কাউন্সিলর পদে ১নং ওয়ার্ডে ৭ জন, ২নং ওয়ার্ডে ৩ জন, ৩নং ওয়ার্ডে ৩ জন, ৪নং ওয়ার্ডে ৩ জন, ৫ নং ওয়ার্ডে ৬ জন, ৬নং ওয়ার্ডে ৪ জন, ৭ নং ওয়ার্ডে ২ জন, ৮নং ওয়ার্ডে ৪ জন, ৯নং ওয়ার্ডে ৩ জন এবং সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ১,২,৩ নং ওয়ার্ডে ৬ জন, ৪,৫,৬ নং ওয়ার্ডে ৫ জন, ৭,৮,৯ নং ওয়ার্ডে ৩ জনের মনোনয়ন পত্র বৈধ বলে ঘোষণা করা হয়েছে।
উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা মুহাম্মদ মনিরুজ্জামান জানান, আগামী ৬ ডিসেম্বরের মধ্যে রিটার্নিং অফিসারের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে জেলা প্রশাসক বরাবর আপিল করা যাবে।
ইসি ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী ১০ ডিসেম্বর প্রার্থিতা প্রত্যাহার, পরদিন ১১ ডিসেম্বর প্রতীক বরাদ্দ এবং ২৮ ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোট গ্রহণের দিন নির্ধারণ করা হয়েছে।

তথ্যটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে শেয়ার করুন

More News Of This Category