1. mahfujpanjeree@gmail.com : Mahfuzur-Rahman :
  2. admin@samagrabangla.com : main-admin :
  3. mahmudursir@gmail.com : samagra :
Title :
শায়েস্তাগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২ জন ও আহত ২০ জন দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত দুই জন। শায়েস্তাগঞ্জে ইন্ডিয়ান নাগরিকের লাশ উদ্ধার। ‘দেশ সেরা অনলাইন কন্টেন্ট নির্মাতা, শায়েস্তাগঞ্জ মডেল কামিল মাদ্রাসার প্রভাষক মোঃ আরিফুল ইসলাম ফেসবুক দিচ্ছে ফেলোশিপ, আবেদন করতে পারবেন অধ্যায়নরত পিএইচডি শিক্ষার্থীরা, বছরে দেবে ৪২,০০০ ডলার হবিগঞ্জের স্কুল শিক্ষিকা সুপ্তা দাশের মৃত্যু: ধর্ষণ ও হত্যার চেষ্টায় অভিযুক্ত অটোরিকশা চালক আটক আওয়ামী লীগ সরকারকে টিকিয়ে রাখতে ভারত সরকারকে অনুরোধ করেছি : পররাষ্ট্রমন্ত্রী ১০ বা তার বেশি সন্তান জন্ম দেবেন তাদের ‘মাদার হিরোইন’ পুরস্কার দেওয়ার ঘোষনা পুতিনের ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে যুবকের আত্মহত্যা চাঁদা না দেয়ায় প্রবাসীর জমি দখল!

শায়েস্তাগঞ্জে মুক্তিপণ না পেয়ে কিশোরহত্যা, পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদে লাশের সন্ধান দেয় অপহরণকারীরা

  • Update Time : মঙ্গলবার, জানুয়ারি ২৬, ২০২১

শায়েস্তাগঞ্জ প্রতিনিধি: হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার নুরপুর ইউনিয়নের পশ্চিম নছরতপুর গ্রামের ফারুক মিয়ার ছেলেকে অপহরণের পর ৮০ লাখ টাকা মুক্তিপণ না দেওয়ায় তানভীর আহমেদকে (১৬) নামের এক কিশোরকে হত্যা করা হয়েছে। আজ মঙ্গলবার দুপুরে পুলিশ কিশোরের লাশ উদ্ধার করে হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।

তানভীর আহমেদ হাজী আফরাজ আলী উচ্চবিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণির ছাত্র।

এলাকার কয়েকজন স্থানীয় বাসিন্দা ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গত রোববার (২৪ জানুয়ারি) রাত ৮টার দিকে তানভীর আহমেদকে অপহরণ করে একই গ্রামের জলিল মিয়ার ছেলে জাহেদ মিয়া (২৪), সৈয়দ আলীর ছেলে উজ্জ্বল মিয়া (২২) ও মলাই মিয়ার ছেলে শান্ত মিয়া (১৮) । অপহরণের পর তানভীরের বাবা ফারুক মিয়ার কাছে ফোনে মুক্তিপণ বাবদ ৮০ লাখ টাকা দাবি করে ওই তিন যুবক।

অপহরণকারীদের ফোন পেয়ে ঘটনাটি সঙ্গে সঙ্গে শায়েস্তাগঞ্জ থানায় যোগাযোগ করেন ফারুক মিয়া। পুলিশ অপহরণের সঙ্গে জড়িত সন্দেহে রবিবার রাতেই জাহেদ ও শান্তকে আটক করে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করে। তাদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী অপহরণের ‘মাস্টারমাইন্ড’ উজ্জ্বলকে আজ মঙ্গলবার (২৬ জানুয়ারি) সকালে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

জিজ্ঞাসাবাদের একপর্যায়ে গ্রেপ্তারকৃতদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী মঙ্গলবার বেলা ১টায় হবিগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এএসপি) রবিউল ইসলাম ও শায়েস্তাগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অজয় চন্দ্র দেবসহ একদল পুলিশ অপহরণকারী উজ্জ্বলের বাড়ির পুকুর থেকে অপহৃত তানভীরের লাশ উদ্ধার করে। তানভীরকে গলায় ফাঁস লাগিয়ে ও বুকে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করেছে বলে স্বীকারোক্তি দিয়েছে ওই তিন যুবক।

এদিকে একমাত্র ছেলেকে হারিয়ে তানভীরের বাবা-মা বার বার মুর্ছা যাচ্ছেন। তাদের কান্নায় আর আর্তনাদে আকাশ-বাতাস ভারী হয়ে উঠছে।

শায়েস্তাগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অজয় চন্দ্র দেব ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘মুক্তিপণ না পেয়ে অপরহণকারীরা ছেলেটিকে হত্যা করে লাশ গুম করার জন্য পুকুরে ফেলে দেয়। আমরা আসামিদের গ্রেপ্তার করে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করায় তারা স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।

তথ্যটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে শেয়ার করুন

More News Of This Category