1. mahfujpanjeree@gmail.com : Mahfuzur-Rahman :
  2. admin@samagrabangla.com : main-admin :

লঞ্চে আগুনে মৃত লাশগুলো নদীর পাড়ের ২১ কবরে ২৩ জনের দাফন

  • Update Time : শনিবার, ডিসেম্বর ২৫, ২০২১

আজ শনিবার বেলা ১১টার দিকে বরগুনা সার্কিট হাউস-সংলগ্ন ঈদগাহ মাঠে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। লাশগুলো বেওয়ারিশ হিসেবে সদর উপজেলার পোটকাখালী গ্রামের সরকারি গণকবরে দাফনের প্রস্তুতি চলছে।

বেলা সাড়ে ১১টায় বরগুনার সার্কিট হাউজ মাঠে ৩০ জনের জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এতে ইমামতি করেন কালেক্টরেট মসজিদের ইমাম মাওলানা জাহিদুল ইসলাম। এরপর পাঁচ জনকে শনাক্ত করেন স্বজনরা। দাফনের জন্য ২৫ লাশ কবরস্থানে নিয়ে আসা হয়। পরে আরও দুই জনকে শনাক্ত করেন স্বজনরা।

দুপুর ১টার দিকে খাকদোন নদী তীরবর্তী এলাকায় ২১টি কবরে ২৩ জনের দাফন সম্পন্ন হয়। চার জনের মরদেহ আলাদা করা না যাওয়ায় দুই কবরে দাফন করা হয়েছে। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বরগুনার জেলা প্রশাসক হাবিবুর রহমান, পৌর মেয়র কামরুল আহসান মহারাজসহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা।

বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে নলছিটির সুগন্ধা নদীর পোনাবালীয়া ইউনিয়নের দেউরী এলাকায় বরগুনাগামী এমভি অভিযান-১০ লঞ্চের ইঞ্জিন রুম থেকে আগুন লাগে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৪১ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। অগ্নিদগ্ধ হয়ে শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৭০ জন। ঢাকায় পাঠানো হয়েছে ১৬ জনকে। আহত হয়েছেন শতাধিক।

মৃত ৪১ জনের মধ্যে চার জনের লাশ নিয়ে গেছেন স্বজনরা। পরে আরও পাঁচ জনের লাশ হস্তান্তর করা হয়েছে। বাকি ৩২ লাশ বরগুনা জেলা প্রশাসনের কাছে হস্তান্তর করে ঝালকাঠি জেলা প্রশাসন। এর মধ্যে দুই জনের লাশ শনাক্ত করেন স্বজনরা। বাকি ৩০ জনের ডিএনএ সংরক্ষণ করা হয়েছে। দাফনের আগে আরও সাত জনের পরিচয় শনাক্ত করেন স্বজনরা।

তথ্যটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে শেয়ার করুন

More News Of This Category