1. mdmasuk350@gmail.com : Abdul Ahad Masuk : Abdul Ahad Masuk
  2. jobedaenterprise@yahoo.com : ABU NASER : ABU NASER
  3. suyeb.mlc@gmail.com : Hafijur Rahman Suyeb : Hafijur Rahman Suyeb
  4. lilysultana26@gmail.com : Lily Sultana : Lily Sultana
  5. mahfujpanjeree@gmail.com : MahfuzurRahman :
  6. admin@samagrabangla.com : main-admin :
  7. mamun@samagrabangla.com : Mahmudur Rahman : Mahmudur Rahman
  8. amshipon71@gmail.com : MUHIN SHIPON : MUHIN SHIPON
  9. yousuf.today@gmail.com : Muhammad Yousuf : Muhammad Yousuf
এশিয়ার সবচেয়ে বড় মানুষের খননকৃত দীঘি! - Samagra Bangla
Title :
লাখাইয়ে সিংহগ্রামের ক্ষুদে ফুটবল খেলোয়ারদের ফাইনাল খেলা ও পুরষ্কার বিতরণ সম্পন্ন।  এমপিওভুক্ত শিক্ষক কর্মচারীদের শতভাগ উৎসবভাতা, বাড়িভাড়া ও মেডিকেলভাতাসহ ছয় দফা দাবি লাখাইয়ে পরকীয়া প্রেমের টানে ঘর ছেড়ে পালিয়েছে ৩ সন্তানের মা। লাখাইয়ে সাংবাদিক প্রোটন দাশ গুপ্তের ২২ তম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে শোকসভা অনুষ্ঠিত। শায়েস্তাগঞ্জে ঘরবন্দি শিক্ষার্থীদের অনলাইন ক্লাস রেকর্ডিং সেন্টারের উদ্বোধন পরীমনি  শিল্পপতি নাসির উদ্দিন মাহমুদের দ্বারা লাঞ্চিত শিশু গর্ভাবস্থায় চন্দ্রগ্রহন ও সূর্যগ্রহণের প্রভাব । প্রচলিত কুসংস্কার ও বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা সূর্য গ্রহণ নিয়ে প্রচলিত ধারণা বজ্রপাতে মৃত ব্যক্তি কি শহীদের মর্যাদা পাবেন? বজ্রপাতে নিহতের লাশ চুরি করতে আসে কেন?

এশিয়ার সবচেয়ে বড় মানুষের খননকৃত দীঘি!

  • Update Time : Sunday, June 7, 2020


দীঘি হলেও এর নাম কিন্তু “রামসাগর”

মানুষের খনন করা বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় দিঘী যা দিনাজপুর (Dinajpur) জেলার তেজপুর গ্রামে অবস্থিত। রামসাগর দীঘির আয়তন প্রায় ৪,৩৭,৪৯২ বর্গমিটার এবং গভীরতা গড়ে প্রায় ১০ মিটার। দীঘির পশ্চিম পাড়ে একটি ঘাট রয়েছে। দিনাজপুর শহর থেকে প্রায় ৭ কিলোমিটার দূরে রামসাগর দীঘি অবস্থিত। 

সর্বাধিক দৈর্ঘ্য‎: ‎১,০৩১ মিটার, সর্বাধিক প্রস্থ‎: ‎৩৬৪ মিটার।
পুরো দীঘিটি ফ্রেমে আনতে ছবিটি তোলা হয়েছে ৪০০মিটার উপর থেকে

লোককথা আছে ১৭৫০ খ্রিষ্টাব্দে প্রচণ্ড এক খরা দেখা দিলে পানির অভাবে মৃতপ্রায় হয়ে পড়ে হাজার হাজার প্রজা।এসময় দয়ালু রাজা প্রাণনাথ স্বপ্নাদেশ পেয়ে একটি পুকুর খনন করেন।মাত্র ১৫ দিনে এর খনন কাজ সম্পন্ন হয়।কিন্তু সেই পুকুর থেকে পানি না ওঠায় একসময় রাজা স্বপ্নে দৈববাণী পেলেন যে,তার একমাত্র ছেলে রামকে দীঘিতে বলি দিলে পানি উঠবে।

তাই স্বপ্নাদিষ্ট রাজা,দীঘির মাঝখানে একটি ছোট মন্দির নির্মাণ করেন।তারপর এক ভোরে যুবরাজ রামনাথ সাদা পোষাকাচ্ছাদিত হয়ে হাতির পিঠে চড়ে যাত্রা শুরু করলেন সেই দীঘির দিকে।দীঘির পাড়ে পৌঁছে যুবরাজ রাম সিঁড়ি ধরে নেমে গেলেন মন্দিরে।সঙ্গে সঙ্গে দীঘির নিচে থেকে অঝোর ধারায় পানি উঠতে লাগল।চোখের পলকে যুবরাজ রামনাথসহ পানিতে ভরে গেল বিশাল দীঘি।সেই থেকে এর নামকরন করা হয় “রামসাগর”

তথ্যটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে শেয়ার করুন

More News Of This Category