1. mahfujpanjeree@gmail.com : Mahfuzur-Rahman :
  2. admin@samagrabangla.com : main-admin :
Title :
শায়েস্তাগঞ্জে মাজারের পুকুরে ভেসে উঠলো দেহবিহীন মাথা শায়েস্তাগঞ্জে রেলের জমিতে গড়ে উঠা অর্ধশতাধিক অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ। বাইডেনের ক্ষমতা কমিয়ে দিলো সুপ্রিম কোর্ট ইন্টারনেট ছাড়া জিমেইল ব্যবহার করবেন যেভাবে বন্যার্তদের পাশে বাহুবল উপজেলা সেচ্ছাসেবক দল বাহুবলে বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ পাঠালেন উপজেলা নির্বাহী অফিসারের মামা শাহ আলম চৌধুরী প্রয়োজনে আমার বাড়িকে আশ্রয়কেন্দ্র ঘোষনা করব: খন্দকার সুজন বন্যা – কে. এম. রায়হান খান নোয়াঐ গ্রাম এবং স্নানঘাট এর বন্যায় প্লাবিত অঞ্চলের মানুষদের পাশে খন্দকার সুজন সিলেটে পানিবন্দি মানুষের জন্য শুকনা খাবার নিয়ে যাওয়ার পথে ট্রাক দুর্ঘটনা

এশিয়ার সবচেয়ে বড় মানুষের খননকৃত দীঘি!

  • Update Time : রবিবার, জুন ৭, ২০২০


দীঘি হলেও এর নাম কিন্তু “রামসাগর”

মানুষের খনন করা বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় দিঘী যা দিনাজপুর (Dinajpur) জেলার তেজপুর গ্রামে অবস্থিত। রামসাগর দীঘির আয়তন প্রায় ৪,৩৭,৪৯২ বর্গমিটার এবং গভীরতা গড়ে প্রায় ১০ মিটার। দীঘির পশ্চিম পাড়ে একটি ঘাট রয়েছে। দিনাজপুর শহর থেকে প্রায় ৭ কিলোমিটার দূরে রামসাগর দীঘি অবস্থিত। 

সর্বাধিক দৈর্ঘ্য‎: ‎১,০৩১ মিটার, সর্বাধিক প্রস্থ‎: ‎৩৬৪ মিটার।
পুরো দীঘিটি ফ্রেমে আনতে ছবিটি তোলা হয়েছে ৪০০মিটার উপর থেকে

লোককথা আছে ১৭৫০ খ্রিষ্টাব্দে প্রচণ্ড এক খরা দেখা দিলে পানির অভাবে মৃতপ্রায় হয়ে পড়ে হাজার হাজার প্রজা।এসময় দয়ালু রাজা প্রাণনাথ স্বপ্নাদেশ পেয়ে একটি পুকুর খনন করেন।মাত্র ১৫ দিনে এর খনন কাজ সম্পন্ন হয়।কিন্তু সেই পুকুর থেকে পানি না ওঠায় একসময় রাজা স্বপ্নে দৈববাণী পেলেন যে,তার একমাত্র ছেলে রামকে দীঘিতে বলি দিলে পানি উঠবে।

তাই স্বপ্নাদিষ্ট রাজা,দীঘির মাঝখানে একটি ছোট মন্দির নির্মাণ করেন।তারপর এক ভোরে যুবরাজ রামনাথ সাদা পোষাকাচ্ছাদিত হয়ে হাতির পিঠে চড়ে যাত্রা শুরু করলেন সেই দীঘির দিকে।দীঘির পাড়ে পৌঁছে যুবরাজ রাম সিঁড়ি ধরে নেমে গেলেন মন্দিরে।সঙ্গে সঙ্গে দীঘির নিচে থেকে অঝোর ধারায় পানি উঠতে লাগল।চোখের পলকে যুবরাজ রামনাথসহ পানিতে ভরে গেল বিশাল দীঘি।সেই থেকে এর নামকরন করা হয় “রামসাগর”

তথ্যটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে শেয়ার করুন

More News Of This Category