1. mahfujpanjeree@gmail.com : Mahfuzur Rahman : Mahfuzur Rahman
  2. info@samagrabangla.com : samagrabangla :
  3. suaiblike@gmail.com : SUAIB AHMED : SUAIB AHMED
কাবিনে 'এক লক্ষ ২ টাকা, দুই লক্ষ ১ টাকা' হয় কেনো? - সমগ্র বাংলা

কাবিনে ‘এক লক্ষ ২ টাকা, দুই লক্ষ ১ টাকা’ হয় কেনো?

  • আপডেট: শুক্রবার, ১৫ মে, ২০২০
  • ৫১ :বার প্রদর্শিত হয়েছে

প্রায় কাবিনে ‘এক লক্ষ ২ টাকা, দুই লক্ষ ১ টাকা’ লেখা হয়। এই খুচরা ১/২/৩ টাকাগুলি কেন লেখা হয়?

কাবিনে যে টাকা লেখা হয় তা মূলত আমাদের সমাজে দেখানোর জন্যই লেখা হয়, কারন কাবিনের এক টাকা পরিশোধ বাকি থাকতে আপনার স্ত্রী আপনার জন্য বৈধ নয়! এ সহজ মাসআয়ালা তো আমরা সবাই জানি, তারপরও আমরা পাঁচ লাখ টাকা দেনমোহর বাঁধি! ওহ, পাচঁ লক্ষ একহাজার একশত এক টাকা; এরকম আজগুবি হিসাববরর দুইটা কারন হতে পারে:

  • লোক দেখানো: আমাদের সমাজে বিয়ের কথা শুনলে লোকে প্রশ্ন করে দেনমোহর কত? কিন্তু দেসমোহর কত পরিশোধ তা কেউ জিজ্ঞাসা করে না, তাই মুখ বড় করে বলার জন্য এরকম মুখরোচক দেনমোহর ফিক্সট করা হয়। এটাই প্রধান কারন।
  • দেনমোহর খাতায় যেটি লিখলেন সে হিসাবে সরকারী একটি ভ্যাট দিতে হয়, যদিও এ ভ্যাট অতি সামান্য তবুও কাজী সাহেবরা বড়সড় হিসাব করে পাঁচ দশ হাজার করে নেন। অথচ সরকার হয়ত পায় পাঁচ-সাত শত। আবার এ সকল কাজীরা হিসাবের সময় ওই যে লাখের পর এক টাকা লিখেছেন এই এক টাকার জন্য পুরা আরেক লাখ লিখলে যে টাকা নিত সেটা ধরেই হিসাব করে; ফলে দেশের আলেম নামধারী এ সকল কাজীরাই এই প্রথার জন্ম দিয়েছে বলে আমার বিশ্বাস।

পরিশেষে, ভাই বিয়ে করেও কেউ অবৈধ স্ত্রী নিয়ে সংসার করিয়েন না (ধর্মীয় ও আইনগত দিক থেকে স্ত্রী মুখে মাফ করলে সেটি মাফ বলে গন্য হবে না) তাই যেটি পরিশোধ সম্ভব সেইপরিমাণ দেনমোহর নির্ধারন করুন, সবচেয়ে বেটার হল যে কয়টাকার দেনমোহর দিবেন সেই টাকা আর হবু স্ত্রীকে নিয়ে আপনার বোন/ভাবীকে দিয়ে বাজারে পাঠান, তারা পছন্দ করে যে টাকার স্বর্নালংকার অর্ডার করেন সেই টাকা বাদে বাকীটা হবু শ্বশুরের হাতে বিবাহের মসলিসে জমা দিয়ে বিয়ে করা।

আর এই যে ভাংতি হিসাব এটি ফাজলামো ছাড়া অন্য কিছুই নয়। এ ধরনের ইয়ার্কির কোনো দরকার আছে কী?

তথ্যটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে শেয়ার করুন:

এ সম্পর্কিত আরো পড়ুন...
error: Content is protected !!