1. mahfujpanjeree@gmail.com : Mahfuzur-Rahman :
  2. admin@samagrabangla.com : main-admin :

তৃতীয় চোখ বা Third Eye খুলুন

  • Update Time : শনিবার, এপ্রিল ২৩, ২০২২
প্রতিকি ছবি

প্রত্যেকেরই দুটো চোখ রয়েছে। কিন্তু এই দুটো চোখ বাদেও আমাদের আরও একটি অদৃশ্য চোখ রয়েছে। যাকে বলা হয় তৃতীয় নেত্র বা থার্ড আই। এর শক্তি অনেক। এই থার্ড আই বডির ছয় চক্রের একটি। এটি দুই ভ্রূর মাঝ বরাবর থাকে। এই চোখ বাইরে থেকে দেখা যায় না। এটি থাকে ভেতরের দিকে।

তৃতীয় চক্ষু বিষয়টা কী? সেটা আমাদের আগে একটু বুঝে নিলে ভালো হয়। মিথোলজি অনুযায়ী ত্রিনয়ন, তা বাস্তবে আসলে মনঃসংযোগের এক উচ্চতর পর্যায়। যার মাধ্যমে সে গোটা বিশ্বকে অনুধাবন করতে পারে। সোজা ভাষায় বলতে গেলে, তৃতীয় চক্ষু বা থার্ড আই সাধারণ মানুষের চেতনার এক বিশেষ ক্ষমতা। যা নিয়ন্ত্রণ করবে আপনার মন ও আবেগকে। নিয়মিত কিছু অভ্যাসের মাধ্যমে আপনিও সেই ক্ষমতার অধিকারী হতে পারেন।

যদি তৃতীয় চোখের এই স্থানকে জাগ্রত করতে পারেন তবেই হয়ে উঠতে পারবেন সাধারণের থেকে অসাধারণ। ভবিষ্যত দেখতে পারবেন ও অন্যের মনের কথা জানতে পারবেন। তখন যে কাউকেই নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন। প্রশ্ন হল, কি করে থার্ড আই খুলবেন? সাধারণত এই চোখ খোলার জন্য দীর্ঘ মেডিটেশনের প্রয়োজন।

ইন্সটিউট অফ হার্ড ম্যাথের একদল গবেষক বলেন, হিউম্যান হার্ট শরীরের সব থেকে শক্তিশালী অর্গ্যান। এর আগে সবাই জানত, সব থেকে শক্তিশালী অঙ্গ হল মানুষের মন। রিসার্স করার পর বিজ্ঞানিরাও অবাক হয়ে গেছে, এই মনের শক্তি ক্ষমতা দেখে। ইলেক্ট্রিক্যাললি মন ব্রেনের থেকেও ১০০ হাজার গুণ বেশি শক্তিশালী। আর ম্যাগনেটিকের দিক থেকে মন ব্রেনের থেকে ৫ হাজার গুণ বেশি শক্তিশালী।

যদি ব্রেনের শক্তি আর হার্টের শক্তিকে এক করে দেয়া যায় তবে এই দুই শক্তিশালী অঙ্গের সব শক্তি মিলে তৃতীয় চোখও খুলে যাবে। এর জন্য আলাদা কিছুই করতে হবে না। আগেও যেমন মেডিটেশন করতেন তেমনি বসে যাবেন। শুধু খেয়াল রাখবেন যাতে পিঠের মেরুদন্ড সোজা থাকে। এরপর সম্পূর্ণ ফোকাসকে হার্টের মধ্যে নিয়ে আসতে হবে। আর অনুভব করতে হবে যেন হার্ট থেকে শক্তি বের হয়। এসব শক্তি উপরের দিকে উঠে যাচ্ছে তৃতীয় চোখের জায়গায়। এটা যখন করবেন তখন মন থেকে সব ধরনের চিন্তাশক্তি চলে যাবে। তখন মন একদম ফাঁকা হয়ে যাবে। কারণ সম্পূর্ণ ফোকাস থাকবে হার্টের মধ্যে।

তৃতীয় চোখ তো দূরের কথা ইচ্ছা শক্তি প্রখর থাকলে যে কোন জিনিসই পেয়ে যাবেন। থার্ড আই, সিক্সথ সেন্স কিছুকেই উন্মুক্ত করে ফেলতে পারবেন। কতটা গভীর থেকে এই চোখ খুলতে চান? কতটা মনযোগ সহকারে ভিজুয়্যালাইজ করবেন তার ওপর এই নির্ভর করে থার্ড আই কত সময়ের মধ্যে জাগ্রত হবে। মেরিটেশন করার সময় সমস্ত ইমোশন দিয়ে মনের মধ্যে বলবেন, থার্ড আইকে খুলতে চাই। এক পজেটিভ বিশ্বাস স্থাপন করতে হবে, পারবেন এ চোখ জাগ্রত করতে। একবার এ চোখ জাগ্রত হলেই হয়ে উঠবেন অসাধারণ।

তথ্যটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে শেয়ার করুন

More News Of This Category