1. mdmasuk350@gmail.com : Abdul Ahad Masuk : Abdul Ahad Masuk
  2. jobedaenterprise@yahoo.com : ABU NASER : ABU NASER
  3. suyeb.mlc@gmail.com : Hafijur Rahman Suyeb : Hafijur Rahman Suyeb
  4. lilysultana26@gmail.com : Lily Sultana : Lily Sultana
  5. mahfujpanjeree@gmail.com : MahfuzurRahman :
  6. admin@samagrabangla.com : main-admin :
  7. mamun@samagrabangla.com : Mahmudur Rahman : Mahmudur Rahman
  8. amshipon71@gmail.com : MUHIN SHIPON : MUHIN SHIPON
  9. yousuf.today@gmail.com : Muhammad Yousuf : Muhammad Yousuf
ওয়াজে কোরআন-হাদিসের রেফারেন্স বাধ্যতামূলক! - Samagra Bangla

ওয়াজে কোরআন-হাদিসের রেফারেন্স বাধ্যতামূলক!

  • Update Time : Monday, January 18, 2021

স্টাফ রিপোর্টারঃ ওয়াজ-মাহফিল ও ধর্মীয় বক্তৃতায় কাল্পনিক গল্প ও রাষ্ট্রবিরোধী বক্তব্য নিষিদ্ধ করে পবিত্র কোরআন ও বিশুদ্ধ হাদিসের রেফারেন্স বাধ্যতামূলক করে ধর্মীয় বক্তৃতা প্রদানের নির্দেশনা চেয়ে সরকারের সংশ্লিষ্টদের প্রতি (আইনি) লিগ্যাল নোটিশ পাঠানো হয়েছে। নোটিশে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সচিব, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মহা পরিচালক, মন্ত্রি পরিষদ সচিব ও শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিবকে বিবাদী করা হয়েছে । সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মোঃ মাহমুদুল হাসান আজ সোমবার নোটিশটি পাঠিয়েছেন। নোটিশে বলা হয়েছে, আলেমগন পবিত্র ধর্ম  ইসলামের বানী মানুষের দ্বারে দ্বারে পৌছে দেওয়ার মতো মহান দায়িত্ব পালন করছেন।

কিন্তু অনেক সময় দেখা যায় আলেমগন ওয়াজ মাহফিলে সঠিক ইসলাম প্রচার না করে তাদের নিজেদের মতো করে কাল্পনিক গল্প, কিচ্ছা-কাহিনী, গালগল্প, কৌতুক ও রাষ্ট্রবিরোধী বক্তব্য দিয়েই যাচ্ছেন। পাশাপাশি বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম যেমন ফেসবুক, ইউটিউউবে মূহুর্তেই ছড়িয়ে পড়ে এবং সাধারণ মুসলমান তাদের বক্তব্যে প্রভাবিত হয়ে সরকারের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান তথা রাষ্ট্রবিরোধী কাজে লিপ্ত হচ্ছে। নোটিশে আরো বলা হয়েছে, রাষ্ট্রধর্ম যেহেতু ইসলাম সেহেতু যেভাবে ধর্ম প্রচার করলে রাষ্ট্রীয় ধর্ম ইসলাম প্রশ্ণবিদ্ধ না হয় সেভাবে ধর্ম প্রচার বাধ্যতামূলক করে দেওয়া সরকারের দায়িত্ব ও কর্তব্য। সুতরাং বিভিন্ন ওয়াজ মাহফিলে ও বক্তৃতায় বক্তাগন যেন রাষ্ট্রবিরোধী বক্তব্য না দিয়ে পবিত্র কোরআন ও হাদিসের রেফারেন্স উল্লেখ করে বক্তব্য প্রদান করেন এ ব্যপারে সরকারের পদক্ষেপ নেওয়া জরুরী। আরো বলা হয়েছে, ওয়াজ মাহফিলে কাল্পনিক কিচ্ছা-কাহিনী ও বিভ্রান্তিমূলক বক্তব্য শুনে যুব সমাজ যেন উগ্রবাদ ও রাষ্ট্রবিরোধী কোনো কাজে জড়িয়ে না যায় এজন্য সকল পর্যায়ের শিক্ষা ব্যবস্থায় প্রাথমিক থেকে স্নাতকোত্তর পর্যন্ত ছাত্র- ছাত্রীদের পবিত্র কোরআন ও বিশুদ্ধ হাদীস গ্রন্থসমূহের অনুবাদ পড়ানো বাধ্যতামূলক করার দাবি জানানো হয়েছে।

নোটিশে আরো উল্লেখ রয়েছে: ৩০ দিনের ভিতরে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ না করলে এ বিষয়ে পদক্ষেপ চেয়ে হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হবে।

 

তথ্যটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে শেয়ার করুন

More News Of This Category